1. admin@voicectg.com : admin :
মঙ্গলবার, ০১ ডিসেম্বর ২০২০, ০৫:১৩ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ
চিম্বুকে ৫ তারকা হোটেল নির্মাণের প্রতিবাদে উত্তাল পার্বত্য ৩ জেলা | যুবলীগ যদি মাটে নামে ওস্তাদ দৌড়াইয়া কুল পাবেননা-চট্টগ্রামে নিক্সন চৌধুরী অবশেষে ভাসানচরে রোহিঙ্গাদের স্থানান্তর আগামী সপ্তাহে শুরু | হাজী সেলিমের স্ত্রী গুলশান আরা মারা গেছেন | যুদ্ধাপরাধী জামাত হেফাজতের ব্যানারে একত্রিত হচ্ছে-শিক্ষা উপমন্ত্রী নওফেল | আমরা কোনভাবেই মহান নেতা বঙ্গবন্ধুর বিরুদ্ধে নয়, ভাস্কর্যের বিরুদ্ধে | চার দিন ধরে নিখোঁজ রাঙ্গুনিয়ার সেই আকাশ শীল | চট্টগ্রাম সিটি নির্বাচন না করার ঘোষণা দিলেন ডাঃ শাহাদাত | ভয়েস সিটিজি মুক্তিযুদ্ধের পক্ষের শক্তি এক হলে মৌলবাদী গোষ্ঠী লেজ গুটিয়ে পালিয়ে যাবে-নওফেল | ছাত্র লীগের বিক্ষোভের মুখে হাটহাজারীতে আসেননি মামনুল হক | ভয়েস সিটিজি

হাজি সেলিমের হাতে জিম্মি পুরান ঢাকার লালবাগ |

নিউজ ডেক্স
  • প্রকাশিত : মঙ্গলবার, ২৭ অক্টোবর, ২০২০
  • ৬০ বার পড়া হয়েছে

নিউজ ডেক্স

হাজী সেলিমের হাতে জিম্মি পুরান ঢাকার লালবাগ|

ঢাকা-৭ আসনের আওয়ামী লীগ দলীয় সাংসদ হাজী মোহাম্মদ সেলিমের পুত্র ঢাকা দক্ষিণ সিটি ৩০ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর ইরফান মোহাম্মদ সেলিমের হাতে একজন নৌ-বাহিনী কর্মকর্তার লাঞ্ছিত হওয়ার ঘটনার পর মুখ খুলতে শুরু করেছে পুরান ঢাকার লালবাগবাসী।
লালবাগবাসী বলছে, এই ধরণের ঘটনা এটাই প্রথম নয়। লালবাগে হর-হামেশাই এই ধরণের ঘটনা ঘটে। লালবাগের একাধিক বাসিন্দার সাথে কথা বলে জানা যায়, লালবাগবাসী হাজী সেলিমের কাছে এক রকম জিম্মি হয়ে আছেন। হাজী সেলিমের গাড়ি বহর যখন ঘনবসতিপুর্ন এলাকা লালবাগ দিয়ে যায় তখন অন্যদেরকে সাবধানতা অবলম্বন করতে হয়। লালবাগে হাজী সেলিমের বিরুদ্ধচারন করার কোন ব্যক্তিকে খুঁজে পাওয়া যায় না।

লালবাগের একজন পুরনো বাসিন্দা বলেন, ‘আমরা হাজী সেলিমের হাতে এক রকম জিম্মি হয়ে আছি। তার বিরুদ্ধে কথা বললেই নেমে আসে নানা রকম অত্যাচার ও নিপীড়ন’। কিন্তু হাজী সেলিম কিভাবে লালবাগ থেকে বারবার নির্বাচিত হন এই রকম প্রশ্নের উত্তরে অন্য একজন বাসিন্দা বলেন, এটি হয় তার আধিপত্যবাদী রাজনীতির কারণে। যদি আমরা তাকে ভোট না দেই, ভোটের পর আমাদের উপর নির্মম অত্যাচার নেমে আসবে; এজন্যই অনেকে ভোট দেয়।

জানা গেছে যে, লালবাগে হাজী সেলিমের নিজস্ব লোকজন রয়েছে। এই লোকজনই পুরো লালবাগ নিয়ন্ত্রণ করে। হাজী সেলিমের বাইরে গিয়ে লালবাগে কোন কিছু করা কঠিন ব্যাপার। অনুসন্ধানে দেখা গেছে, এক সময় লালবাগের রাজনীতিতে হাজী সেলিম এবং পিন্টুর দ্বৈরথ ছিল। কিন্তু পিন্টু মারা যাওয়ার পর হাজী সেলিমের একক দৌড়াত্ম শুরু হয়েছে।

লালবাগের রাজনীতিতে আওয়ামীলীগের পুরনো নেতা হলেন মোস্তফা জালাল মহিউদ্দিন। কিন্তু পেশীশক্তি ও আধিপত্যবাদের রাজনীতিতে তিনি হাজী সেলিমের কাছে বহু আগেই হেরে গেছেন। ওয়ার্ড কমিশনার হাজী সেলিম এক সময় বিএনপি করতেন। তারপর তিনি আওয়ামীলীগের রাজনীতিতে যোগ দিয়ে ৯৬ সালে প্রথম এমপি হন তখনও তার ওয়ার্ডের কমিশনার ছিলেন তার স্ত্রী । ২০১৪ সালে আওয়ামীলীগের মনোনয়ন না পেলেও তিনি স্বতন্ত্রভাবে নির্বাচিত হয়েছিলেন। বর্তমান আওয়ামী লীগ দলীয় এই সাংসদ।

একাধিক ব্যক্তি বলছেন যে,দীর্ঘদিনধরে নির্বাচিত জনপ্রতিনিধিত্ব করা হাজী সেলিমের এলাকায় জনপ্রিয়তা রয়েছে। তবে তা একটা নির্দিষ্ট গোষ্ঠীর মধ্যে। এই জনপ্রিয়তার বাইরে এক ধরণের পেশীশক্তি আর আধিপত্য দিয়ে হাজী সেলিম লালবাগকে নিয়ন্ত্রণ করছে। আর এমনটাই অভিযোগ করেন স্থানীয় নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক দুয়েকজন বাসিন্দা।

রোববারের ঘটনার উদ্ধৃতি দিয়ে তারা জানায়, এই রকম ঘটনা লালবাগে হরহামেশাই ঘটে। এমনকি হাজী সেলিমের কর্মচারীদের গাড়ির সাথেও যদি ধাক্কা লাগে; এতে করে তারা মারধর শুরু করেন। এসব মারধরের ঘটনা লালবাগের একটি নিত্য- নৈমিত্তিক বিষয়ে পরিণত হয়েছিল। কিন্তু এসব নিয়ে কেউ কোনদিন কথা বলেনি। এখন এই ঘটনার পর সবাই মুখ খুলতে শুরু করেছে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

প্রযুক্তি সহায়তায় ইন্টেল ওয়েব