1. admin@voicectg.com : admin :
মঙ্গলবার, ০১ ডিসেম্বর ২০২০, ০৪:৫৭ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ
চিম্বুকে ৫ তারকা হোটেল নির্মাণের প্রতিবাদে উত্তাল পার্বত্য ৩ জেলা | যুবলীগ যদি মাটে নামে ওস্তাদ দৌড়াইয়া কুল পাবেননা-চট্টগ্রামে নিক্সন চৌধুরী অবশেষে ভাসানচরে রোহিঙ্গাদের স্থানান্তর আগামী সপ্তাহে শুরু | হাজী সেলিমের স্ত্রী গুলশান আরা মারা গেছেন | যুদ্ধাপরাধী জামাত হেফাজতের ব্যানারে একত্রিত হচ্ছে-শিক্ষা উপমন্ত্রী নওফেল | আমরা কোনভাবেই মহান নেতা বঙ্গবন্ধুর বিরুদ্ধে নয়, ভাস্কর্যের বিরুদ্ধে | চার দিন ধরে নিখোঁজ রাঙ্গুনিয়ার সেই আকাশ শীল | চট্টগ্রাম সিটি নির্বাচন না করার ঘোষণা দিলেন ডাঃ শাহাদাত | ভয়েস সিটিজি মুক্তিযুদ্ধের পক্ষের শক্তি এক হলে মৌলবাদী গোষ্ঠী লেজ গুটিয়ে পালিয়ে যাবে-নওফেল | ছাত্র লীগের বিক্ষোভের মুখে হাটহাজারীতে আসেননি মামনুল হক | ভয়েস সিটিজি

আসছে শীত ফ্লু থেকে বাঁচতে দৈনিক খাবারে যোগ করুন লেবু | ভয়েস সিটিজি

ডেক্স নিউজ
  • প্রকাশিত : রবিবার, ৮ নভেম্বর, ২০২০
  • ৪০ বার পড়া হয়েছে

প্রকৃতিতে আসন্ন শীতকাল। প্রকৃতির সাথে সাথে শরীর ও মনেও আসে পরিবর্তন এবং সেই সাথে আমাদের খাবারের তালিকায়ও আসবে রদবদল। শীতকালে এমন খাবারগুলো তালিকায় রাখা উচিত যা শরীর ও মন দুটোই ভালো রাখতে সাহায্য করে। শরীর সুস্থ রাখতে শীতকালে বেছে নিতে পারেন এমন কিছু খাবার-

লেবু: শীতকালে পাওয়া সাইট্রাস ফলগুলো বেশি মিষ্টি এবং রসালো। তাই লেবু বা কমলা লেবু খাওয়ার উপযুক্ত সময় শীতে। কমলা বা লেবুতে যে ভিটামিন সি রয়েছে তা আপনাকে প্রতিরোধ ক্ষমতা শক্তিশালী করতে ও সংক্রমণের বিরুদ্ধে লড়াই করতে সাহায্য করবে। শীতকালে যেহেতু ফ্লু এর পরিমাণ বেশি থাকে সেক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে কমলা বা লেবু, আপনার প্রতি বেলা আহারে যোগ করতে পারেন লেবু।

আদা: প্রতিনিয়ত আমাদের তরকারি রান্না থেকে শুরু করে চা পর্যন্ত, আদা একটি বহুমুখী উপাদান যা বিভিন্ন উপায়ে ব্যবহার আমরা ব্যবহার করতে পারি। ঠান্ডা ও ফ্লু এর অন্যতম প্রতিকার থাকে আদার মধ্যে। আদাতে অ্যান্টি-ইনফ্ল্যামেটরি বৈশিষ্ট্য রয়েছে যা গলা ব্যথা উপশম করতে পারে এবং সংক্রমণের বিরুদ্ধে লড়াই করতে পারে। শীতকালে প্রায়ই সর্দি, কাশি লেগেই থাকে সেক্ষেত্রে ওষুধ হিসেবে কাজ করে আদা। শীতকালে আপনার ডায়েটের ক্ষেত্রেও আদা যোগ করা উচিত।

ব্রকলি: শীতের সময় বাজারে প্রচুর পরিমানে ব্রকলি পাওয়া যায়। ব্রকলির গুণের কথা বলে শেষ করা যাবে না। ভিটামিন মিনারেলের পাওয়ার হাউজ বলা হয় ব্রকলিকে। ব্রকলিতে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন সি,কে,এ এবং ভিটামিন বি-৯ রয়েছে।এছাড়াপ্রয়োজনীয় মিনারেলসযেমন,পটাশিয়াম ও ফসফরাস রয়েছে।নিয়মিত ব্রকলি খেলে আপনি সর্বদা সুস্থ থাকবেন এবং যে কোনও ভিটামিনের ঘাটতিতে ভোগার ঝুঁকি থাকবে না। ব্রোকলিতে উপস্থিত অ্যান্টিঅক্সিড্যান্টগুলি আমাদের কোষের ক্ষয়ক্ষতি কমিয়ে দেয় এবং আমাদের অঙ্গগুলো যেন সচল রেখে কাজ করতে পারে তা নিশ্চিত করে।

শুকনো ফল: খেজুর,অ্যাপ্রিকট এবং বিভিন্ন ধরনের শুকনো ফল আপনার শরীরের যন্ত্রসমূহকে গরম ও স্বাভাবিক রাখতে সাহায্য করে।

বিটরুট: শীতকালে হাতের নাগালেই পাওয়া যায় বিটরুট। এর উজ্জ্বল লাল রঙ ও মিষ্টি স্বাদের জন্য বিটরুট আমাদের কাছে পরিচিত। উচ্চ রক্তচাপে ভুগছেন এমন রোগীদের ক্ষেত্রে কার্যকরি ভূমিকা পালন করে বিটরুট। একইভাবে, যারা নিয়মিত পরিশ্রম করেন তাদের জন্যও নাইট্রেট খাওয়া ভাল, কারণ এটি মাইটোকন্ড্রিয়ার কার্যকারিতা বাড়িয়ে তুলতে পারে এবং আপনাকে আরও শক্তিশালী করতে পারে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

প্রযুক্তি সহায়তায় ইন্টেল ওয়েব