1. admin@voicectg.com : admin :
মঙ্গলবার, ০১ ডিসেম্বর ২০২০, ০৫:০৭ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ
চিম্বুকে ৫ তারকা হোটেল নির্মাণের প্রতিবাদে উত্তাল পার্বত্য ৩ জেলা | যুবলীগ যদি মাটে নামে ওস্তাদ দৌড়াইয়া কুল পাবেননা-চট্টগ্রামে নিক্সন চৌধুরী অবশেষে ভাসানচরে রোহিঙ্গাদের স্থানান্তর আগামী সপ্তাহে শুরু | হাজী সেলিমের স্ত্রী গুলশান আরা মারা গেছেন | যুদ্ধাপরাধী জামাত হেফাজতের ব্যানারে একত্রিত হচ্ছে-শিক্ষা উপমন্ত্রী নওফেল | আমরা কোনভাবেই মহান নেতা বঙ্গবন্ধুর বিরুদ্ধে নয়, ভাস্কর্যের বিরুদ্ধে | চার দিন ধরে নিখোঁজ রাঙ্গুনিয়ার সেই আকাশ শীল | চট্টগ্রাম সিটি নির্বাচন না করার ঘোষণা দিলেন ডাঃ শাহাদাত | ভয়েস সিটিজি মুক্তিযুদ্ধের পক্ষের শক্তি এক হলে মৌলবাদী গোষ্ঠী লেজ গুটিয়ে পালিয়ে যাবে-নওফেল | ছাত্র লীগের বিক্ষোভের মুখে হাটহাজারীতে আসেননি মামনুল হক | ভয়েস সিটিজি

কক্সবাজারে ওসি প্রদীপের বিরুদ্ধে দায়েরকৃত আরো ৪ হত্যা মামলা তদন্তের নির্দেশ আদালতের |

ডেক্স নিউজ
  • প্রকাশিত : সোমবার, ১৬ নভেম্বর, ২০২০
  • ৭৪ বার পড়া হয়েছে

মেজর (অব.) সিনহা মো. রাশেদ হত্যা মামলায় কারাগারে থাকা কক্সবাজারের টেকনাফ থানার বরখাস্ত ওসি প্রদীপ কুমার দাশসহ অন্য আসামিদের বিরুদ্ধে ক্রসফায়ারের নামে হত্যার অভিযোগে দায়ের করা চারটি মামলা তদন্তের নির্দেশ দিয়েছে আদালত।

সোমবার (১৬ নভেম্বর) বিকেলে কক্সবাজারের সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালত-৪ এর বিচারক তামান্না ফারাহ শুনানি শেষে এ আদেশ দিয়েছেন।

আদালত সূত্রে জানা গেছে, দুটি মামলা সিআইডিকে, একটি পিবিআইকে ও অপর একটি মামলা উখিয়া-টেকনাফ সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপারকে তদন্ত করার আদেশ দেয়া হয়েছে।

প্রসঙ্গত, গত ৩১ জুলাই টেকনাফের মেরিন ড্রাইভ রোডে শামলাপুর চেকপোস্টে সেনাবাহিনীর অবসরপ্রাপ্ত মেজর সিনহা হত্যাকাণ্ডের পর ওসি প্রদীপ গ্রেপ্তার হলে তার দায়িত্বকালীন সময়ে কথিত ক্রসফায়ারে নিহত স্বজনদের অনেকে আদালতে মামলার আবেদন করেন।

এসব মামলার মধ্য থেকে গত ১০ সেপ্টেম্বর টেকনাফের বাহারছড়ার আবদুল আমিন ও হোয়াইক্যংয়ের মুফিদ আলম নামের দুইজনকে ক্রসফায়ারের নামে হত্যার অভিযোগে ওসি প্রদীপসহ ৫৬ জনের বিরুদ্ধে আদালতে দুটি মামলার আবেদন করা হয়েছিল।

একইভাবে টেকনাফের হোয়াইক্যং ইউনিয়নের শাহাবউদ্দিন, মিজানুর রহমাান ও মাহমুদুর রহমান নামে আরো তিনজনকে হত্যার অভিযোগ এনে মামলা দায়ের করেছিলেন নিহতের স্বজনরা। উক্ত ৫ মামলার মধ্যে সোমবার আদালত ৪টি মামলার তদন্তের নির্দেশ দিয়েছে আদালত। বাকি একটি মামলা পরবর্তীতে শুনানির জন্য রাখা হয়েছে।

এর আগে মামলার আবেদনগুলো গ্রহণ করে এ সংক্রান্ত পূর্বের কোনো মামলা রয়েছে কিনা এবং ময়নাতদন্ত করা হয়েছে কিনা জানতে চেয়ে টেকনাফ থানাকে নির্দেশ দিয়েছিল আদালত। থানা থেকে প্রতিবেদন দেয়ায় উক্ত মামলাগুলো তদন্তের নির্দেশ দেয়া হয়।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

প্রযুক্তি সহায়তায় ইন্টেল ওয়েব